অভিনেত্রী দীঘির বিরুদ্ধে এক কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের মামলা

0
210

অনলাইন ডেস্ক:: অভিনেত্রী দীঘির বিরুদ্ধে এক কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের মামলা করেছেন প্রযোজক সিমি ইসলাম। একই সঙ্গে দীঘি, তাঁর বাবা সুব্রত ও মামার নামে পৃথক আরেকটি মানহানির মামলা করেছেন নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। ছবির নির্মাতা ও প্রযোজক আজ বুধবার দুপুরে মহানগর দায়রা জজ আদালতে এ মামলা করেন।

১২ মার্চ শুক্রবার প্রথমবারের মতো দীঘি নায়িকা চরিত্রে অভিষিক্ত হচ্ছেন। ছবিটির নাম ‘তুমি আছো তুমি নেই’। ইতিমধ্যে ছবিটির ট্রেলার প্রকাশ পেয়েছে। ট্রেলার নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনা তৈরি হয়েছে। ছবিটি নিয়ে ট্রলের স্বীকার হন অভিনেত্রী দীঘি। পরে তাঁর মন্তব্যকে ঘিরে সমালোচনা বাড়তে থাকে।

নির্মাতার দাবি, ছবিটি মুক্তি পাওয়ার আগেই দীঘি সিনেমাটির গল্প, নির্মাণ ও ব্যবসা নিয়ে নেতিবাচক কথা বলেছেন। নির্মাতা বলেন, ট্রেলার দেখে দীঘি মন্তব্য করেছেন, এটা তাঁর ভালো লাগেনি। এই ছবি চলবে না। ছবির গল্প, নির্মাণের দুর্বলতা নিয়ে কথা বলেছেন।

বাবা চলচ্চিত্র অভিনেতা সুব্রতর সঙ্গে দীঘি। সংগ্রহ

গানগুলো তাঁর ভালো লাগেনি। কথা বলার সময় ঝন্টু প্রশ্ন করেন, একজন নায়িকা যদি ট্রেলার দেখে দর্শকদের কাছে বলে বেড়ান ছবিটি ভালো না, সেটা কে দেখবে, এটা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ছাড়া অন্য কিছু নয়। তিনি বলেন, ‘আমি ঝন্টু, আমার ছবি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ আছে। আমার একাধিক ছবি ব্যবসাসফল। কার ছবি নিয়ে দীঘি কথা বলছে, এটা তার ভাবা উচিত। আমার ছবি নিয়ে কোনো ষড়যন্ত্র মানব না।’

দেলোয়ার জাহান ঝন্টু জানান, পৃথিবীর ইতিহাসে দীঘির মতো কোনো অভিনেত্রীকে আর খুঁজে পাওয়া যাবে না, যে নিজের ছবির বিরুদ্ধে সরাসরি নেতিবাচক প্রচারণা করেন। টিভি ও পত্রিকায় বাজে কথা বলে বেড়ান।
বাবা চলচ্চিত্র অভিনেতা সুব্রতর সঙ্গে দীঘি।

দীঘি। সংগ্রহ

এ সম্পর্ককে ঝন্টু প্রথম আলোকে জানান, দীঘি সরাসরি দর্শকদের কাছে দাবি করেন, তাঁদের ছবি ভালো হবে না। ছবিটি নিয়ে তিনি হতাশা ব্যক্ত করেছেন। তিনি মনে করেন, এই কথার পর ছবিটির অর্ধেক দর্শক কমে যাবে।

তিনি বলেন, ‘আমি ও ছবিটির প্রযোজক একসঙ্গে মামলা করেছি। দীঘির মামা আমার ছবি দেখতে চেয়েছে। সে আমাকে অসম্মান করেছে। তার বাবাও সব জেনে চুপ করে আছে। এ জন্য আমরা বাধ্য হয়ে মামলার পথে এগিয়েছি।’

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার মামলার প্রস্তুতি নিয়েছেন প্রযোজক ও নির্মাতা। এই মামলার প্রসঙ্গে যোগাযোগ করা হলে প্রথম আলোকে দীঘি বলেন, ‘আমি এখনো মামলার বিষয়ে কিছু জানি না। এখন শুটিংয়ে আছি।’ এর আগে গতকাল রাতে কথা হলে দীঘি প্রথম আলোকে জানান, ছবিটি নিয়ে তিনি নেতিবাচক কিছু বলেননি। তিনি ছবিটি নিয়ে যে কথা বলেছেন, সেটা কেটে কেটে ছোট ভিডিও আকারে প্রকাশ পেয়েছে। যে কারণে ভুল–বোঝাবুঝি থেকে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমি ঝন্টু আঙ্কেলকে খুবই সম্মান করি। শুনেছি তিনি মামলা করবেন। কিন্তু মনে করি পুরো ভিডিও দেখলে কারও কোনো সন্দেহ থাকবে না। কারণ, আমার নামে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেটার জন্য আমি দায়ী নই। তারপরও যদি ঝন্টু আঙ্কেল কষ্ট পেয়ে থাকেন, আমি ছোট একজন হিসেবে তাঁর মতো গুণী নির্মাতার কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।’

 

সুত্র:ছা/প্রথম আলো

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here