শ্রীমঙ্গল দূবৃত্তদের ছুরিকাঘাতে যুবক আহত, আটক-৪

লেখক: Sajib Uddin Helal
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

নিজস্ব প্রতিবেদক::

শ্রীমঙ্গলে ছুরিকাঘাতে আরাফাত হোসেন (৩৫) নামের এক যুবক আহত হয়েছেন। তারেক আশাংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ তাৎক্ষুনিক অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত চার যুবককে আটক করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে শহরের শ্রীমঙ্গল থানার পিছনে এবং জামে মসজিদের গলির রাস্তায়। আহত যুবক আরাফাত হোসেন উপজেলার সিন্দুরখাই ইউনিয়নের লাংলিয়াছড়া আনারস বাগান ব্যবসায়ী আব্দুর রহমানের পুত্র।

শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো.শামীম অর রশীদ তালুকদার বিকাল ৩টায় এক প্রেসব্রিফিং-এ জানান, মঙ্গলরবার দুপুর প্রায় ১ টার সময় ভিকটিম আরাফাত হোসেন ও সঙ্গীয় ডালিম নামে এক যুবক মটরসাইকেল যোগে থানার পাশে জামে মসজিদ এর গলির দিকে যাচ্ছিলেন। এমন সময় আব্দুর রউফ (৪২), বেলাল মিয়া (৩০), মো.বিল্লাল (৩২) ও রুমন মিয়া (৩৫) আরাফাতের মটরসাইকেল এর গতি রোধ করে তাকে চাকু দিয়ে পিঠে উপর্যুপুরি ছুরিকাঘাত করে মাটিতে ফেলে দেয়।

এমন সময় থানা থেকে তিনি ভিকটিমের হাল্লা চিৎকার শোনে ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রথমে সিএনজি অটোরিক্সা যোগে ভিকটিমকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্ম প্রেরণ করা হয়। পরে তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পরে আসামীদের পেছনে ধাওয়া করে উল্লেখিত চারজন আসামীকে ধরতে সক্ষম হন। আসামীরা উপজেলা উত্তর উত্তরসুর এলাকার মহব্বত আলীর ছেলে বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই জামাল হোসেন উল্লেখিত চার আসামীসহ আরও দুই জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করছে।

ভিকটিমের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

এ ব্যাপারে আসামীদের মামা মীর মো.রাজা মিয়া জানান, উপজেলার লাংলিয়া ছড়া এলাকায় জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গত সোমবার ভিকটিম আরাফাতসহ আরও তাদের লোকজন আসামীদের বড় ভাই হেলাল মিয়াকে মারপিট করে। এ ঘটনায় গতকাল রাতেই আরাফাতসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয় বলে তিনি জানান।

মুক্তবার্তা২৪.কম/শ্রীসৈছাআ