ঢাকা ০৩:২৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সিলেটে ২২ জানুয়ারি থেকে পাম্পে ধর্মঘটের ঘোষণা

  • অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৬:৩৯:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২৩
  • 37

সিলেটে জ্বালানি তেল সংকট চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। চট্টগ্রাম থেকে রেলের ওয়াগন সিলেটে অনিয়মিতভাবে আসা, বিভিন্ন প্লান্ট বন্ধ থাকাসহ একাধিক কারণে এ জ্বালানি সংকট চলছে। এ অবস্থায় আগামী রোববার (২২ জানুয়ারি) থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য জ্বালানি তেল বিক্রি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলারস ডিস্ট্রিবিউটরস এজেন্টস অ্যান্ড পেট্রোলিয়াম ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সিলেট বিভাগীয় কমিটি। শনিবার দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল এলাকার একটি কনভেশন হলে জরুরি সভা থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

জানা যায়, সিলেটে পেট্রোল, অকটেন ও ডিজেলের সংকট চলছে গত কয়েকমাস ধরে। বিশেষ করে সেচ মৌসুম শুরু হওয়ায় ডিজেলের সংকট আরও তীব্র হয়। প্রতিদিন সিলেট জেলায় ১০ লাখ লিটার ডিজেলের চাহিদা থাকলেও ব্যবসায়ীরা পাচ্ছেন মাত্র ২-৩ লাখ লিটার। ফলে সংকট আরও প্রকট হয়ে উঠে। ব্যবসায়ীদের অনেকে আশুগঞ্জ ডিপো থেকে জ্বালানি সংগ্রহ করে সিলেটের বিভিন্ন পাম্পে পৌঁছে দিচ্ছেন। কিন্তু চাহিদা পূরণ না করতে পারায় শনিবার ধর্মঘটের ডাক দেন জ্বলানি ব্যবসায়ীরা।

এ বিষয়ে অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব ও সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি জুবায়ের আহমদ চৌধুরী জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন থেকে সিলেটের ব্যবসায়ীদের চাহিদা অনুযায়ী জ্বালানি তেল সরবরাহ করা হচ্ছে না। বার বার এ নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়। কিন্তু কোনো সমাধান না হওয়ায় তারা বাধ্য হয়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন।

তিনি জানান, আগামী বুধবার থেকে সিলেটের ব্যবসায়ীরা ডিপো থেকে তেল নেবেন না। ২২ জানুয়ারি থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিক্রি বন্ধ রাখবেন।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ নাজমুল ইসলামের সভাপতিত্বে জরুরি সভায় বক্তব্য দেন সিলেটের জ্বালানি তেল ব্যবসায়ীরা।

এ বিষয়ে পদ্মা ও যমনুা জ্বালানি কোম্পানি সিলেট ডিপোর দায়িত্বশীলদের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তবে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জ্বালানি সংকটের সমাধানের ক্ষমতা তাদের হাতে নেই। জ্বালানি আসে চট্রগ্রাম থেকে। সেখান থেকে নিয়মিত তেলের ওয়াগন না আসলে তারা সরবরাহ করতে পারেন না। তিনি চট্রগ্রামেও সংকটের কথা জানান।

মুক্তবার্তা২৪.কম/ ২০২৩/০১/১৫ সউহে

ট্যাগস :
x
বাংলা বাংলা English English

সিলেটে ২২ জানুয়ারি থেকে পাম্পে ধর্মঘটের ঘোষণা

আপডেট সময় ০৬:৩৯:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২৩

সিলেটে জ্বালানি তেল সংকট চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। চট্টগ্রাম থেকে রেলের ওয়াগন সিলেটে অনিয়মিতভাবে আসা, বিভিন্ন প্লান্ট বন্ধ থাকাসহ একাধিক কারণে এ জ্বালানি সংকট চলছে। এ অবস্থায় আগামী রোববার (২২ জানুয়ারি) থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য জ্বালানি তেল বিক্রি বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলারস ডিস্ট্রিবিউটরস এজেন্টস অ্যান্ড পেট্রোলিয়াম ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সিলেট বিভাগীয় কমিটি। শনিবার দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুল এলাকার একটি কনভেশন হলে জরুরি সভা থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

জানা যায়, সিলেটে পেট্রোল, অকটেন ও ডিজেলের সংকট চলছে গত কয়েকমাস ধরে। বিশেষ করে সেচ মৌসুম শুরু হওয়ায় ডিজেলের সংকট আরও তীব্র হয়। প্রতিদিন সিলেট জেলায় ১০ লাখ লিটার ডিজেলের চাহিদা থাকলেও ব্যবসায়ীরা পাচ্ছেন মাত্র ২-৩ লাখ লিটার। ফলে সংকট আরও প্রকট হয়ে উঠে। ব্যবসায়ীদের অনেকে আশুগঞ্জ ডিপো থেকে জ্বালানি সংগ্রহ করে সিলেটের বিভিন্ন পাম্পে পৌঁছে দিচ্ছেন। কিন্তু চাহিদা পূরণ না করতে পারায় শনিবার ধর্মঘটের ডাক দেন জ্বলানি ব্যবসায়ীরা।

এ বিষয়ে অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব ও সিলেট বিভাগীয় কমিটির সভাপতি জুবায়ের আহমদ চৌধুরী জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন থেকে সিলেটের ব্যবসায়ীদের চাহিদা অনুযায়ী জ্বালানি তেল সরবরাহ করা হচ্ছে না। বার বার এ নিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠক করা হয়। কিন্তু কোনো সমাধান না হওয়ায় তারা বাধ্য হয়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন।

তিনি জানান, আগামী বুধবার থেকে সিলেটের ব্যবসায়ীরা ডিপো থেকে তেল নেবেন না। ২২ জানুয়ারি থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিক্রি বন্ধ রাখবেন।

অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ নাজমুল ইসলামের সভাপতিত্বে জরুরি সভায় বক্তব্য দেন সিলেটের জ্বালানি তেল ব্যবসায়ীরা।

এ বিষয়ে পদ্মা ও যমনুা জ্বালানি কোম্পানি সিলেট ডিপোর দায়িত্বশীলদের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও তারা বক্তব্য দিতে রাজি হননি। তবে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জ্বালানি সংকটের সমাধানের ক্ষমতা তাদের হাতে নেই। জ্বালানি আসে চট্রগ্রাম থেকে। সেখান থেকে নিয়মিত তেলের ওয়াগন না আসলে তারা সরবরাহ করতে পারেন না। তিনি চট্রগ্রামেও সংকটের কথা জানান।

মুক্তবার্তা২৪.কম/ ২০২৩/০১/১৫ সউহে